ইফাজ নামের বাংলা, আরবি/ইসলামিক অর্থ কি?

Share The Post

ইফাজ নামের বাংলা, আরবি/ইসলামিক অর্থ কি? ইফাজ কি ইসলামিক নাম? ইফাজ নামের জনপ্রিয় ব্যক্তি। ইফাজ নামের রাশি কি? ইফাজ নামের শুভ সংখ্যা কত? ইফাজ নামের ছেলেরা কেমন হয়?

হ্যালো বন্ধু, আপনাকে স্বাগত জানাই starbijay.com ওয়েবসাইটে। পৃথিবীতে যতগুলি নাম রয়েছে সেই নামগুলির কিছু-না-কিছু অর্থ রয়েছে। তেমনি ‘ইফাজ’ নামেরও বিশেষ কিছু অর্থ রয়েছে। তাই নামের অর্থ এই পোস্ট টিতে আলোচনা করা হয়েছে:

  1. ইফাজ নামের বাংলা, আরবি/ইসলামিক অর্থ কি?
  2. ইফাজ নামটি কোন ধর্মের?
  3. ইফাজ কি ইসলামিক নাম?
  4. ইফাজ নামটি কোন ভাষার শব্দ?
  5. ইফাজ নামের রাশি কি?
  6. ইফাজ নামের শুভ সংখ্যা কত?
  7. ইফাজ নামের শুভ রং কি?
  8. ইফাজ নামের শুভ দিন কি?
  9. ইফাজ নামের শুভ দিক কি?
  10. ইফাজ নামের জনপ্রিয় ব্যক্তি।
  11. ইফাজ নামটি কেন জনপ্রিয়?
  12. সন্তানের জন্য ইফাজ নামটি কেমন হবে?
  13. ইফাজ নামের ছেলেরা কেমন হয়?

ইফাজ নামের সম্পর্কে আরো অনেক গুরুত্বপূর্ণ তথ্য জানতে এই পোস্টটি সম্পূর্ণ পড়ুন।

ইফাজ নামের অর্থ কি

আপনার পরিবারে নতুন সদস্য জন্ম নিয়েছে কি? তার নাম ইফাজ রাখার কথা ভাবছেন? কিংবা আপনার বন্ধু বা আপনি নিজেই ইফাজ নামের মানুষ? সেই জন্য ইফাজ নামটির সম্পর্কে জানার চেষ্টা করছেন? তো চলুন এক নজরে জেনে নেওয়া যাক ইফাজ নামের সম্পর্কে।

ইফাজ নামের অর্থ কি?

ইফাজ নামটি খুব সুন্দর এবং ভালো। বাংলাদেশে অনেক ছেলেদের নাম ইফাজ রাখা হয়েছে। এবং ইফাজ নামের মতোই ইফাজ নামের অর্থও খুব সুন্দর। ইফাজ নামের অর্থ হলো উপকার করা বা সাহায্য করা।

ইফাজ নামের আরবি/ইসলামিক অর্থ কি?

ইসলামে সন্তানের সুন্দর নাম রাখার ব্যাপারে তাগিদ দেওয়া হয়েছে। হাদিস এ এসেছে নিশ্চিত কেয়ামতের দিন প্রত্যেককেই ডাকা হবে তাদের নাম ও তাদের পিতার নাম ধরে। তাই প্রত্যেকের নাম ভালো ভাবে রাখা উচিৎ।

ইফাজ নামটি আরবি ভাষা থেকে এসেছে। ইফাজ নামের আরবি এবং ইসলামিক অর্থ হলো উপকার করা বা সাহায্য করা।

ইফাজ নামের সংক্ষিপ্ত বিবরণ।

নামইফাজ
ইংরেজি বানানEfaj
লিঙ্গছেলে
নামের দৈর্ঘ্য3 বর্ণ এবং 1 শব্দ
আধুনিক নামহ্যাঁ
ছোটো নামহ্যাঁ
অর্থউপকার করা বা সাহায্য করা।
উৎসআরবি
রাশিবৃষ রাশি
শুভ সংখ্যা1
শুভ রংসাদা
শুভ দিনশুক্রবার
শুভ দিকঅগ্নিকোণ
শুভ রত্নসাদা প্রবাল পাথর

ইফাজ নামের ছেলেরা কেমন হয়?

যে কোনো মানুষের চরিত্র জানার সবথেকে সঠিক উপায় হলো তার সাথে সময় কাটান এবং তার প্রতিটা পদক্ষেপ লক্ষ করুন। তার পরিচিতদের কাছে বা তার পাড়ার লোকেদের কাছ থেকে শুনুন তিনি কেমন মানুষ।

আপনার চেনা জানার মধ্যে অনেকেই রয়েছেন তাদের চরিত্র কেমন হয় তা কিন্তু আপনার জানা নেই। কিন্তু কিছু জ্যোতিষ শাস্ত্র অনুযায়ী মানুষের নামের প্রথম অক্ষর দিয়ে জানা যায় সেই ব্যক্তির চরিত্র।

অবশ্যই পড়ুন: নামের শুরুতে A থেকে Z থাকলে সেই মানুষ কেমন হয়?

ইফাজ নামের জনপ্রিয় ব্যক্তি।

ইফাজ নামের জনপ্রিয় ব্যক্তি খুঁজে পাওয়া যায়নি।

ইফাজ নামের রাশি কি?

বাংলা বর্ণমালার 3য় বর্ন হল ‘ ই’ আর ইফাজ নামটির প্রথম অক্ষর ই দিয়ে শুরু হয়। পৃথিবীতে যত মানুষ রয়েছে তাদের নামের প্রথম অক্ষর ই দিয়ে শুরু হলে তাদের বৃষ রাশি হয়। ইফাজ নামের রাশি হলো বৃষ রাশি।

অবশ্যই পড়ুন: নামের প্রথম অক্ষর দিয়ে রাশি জানার উপায়

ইফাজ নামের শুভ সংখ্যা কত?

ইফাজ নামের শুভ সংখ্যা জানার আগে আপনেকে জানতে হবে সংখ্যা কি? সংখ্যা হলো পরিমাপের একটি মূর্তিহীন ধারণা। সংখ্যা প্রকাশের প্রতীকগুলিকে বলা হয় অঙ্ক। এর প্রকৃত উদাহরণগুলি হল 1,2,3,4,5(স্বাভাবিক সংখ্যা) এবং আরও অনেকগুলি সংখ্যা রয়েছে। ইফাজ নামের শুভ সংখ্যা হলো 1

ইফাজ নামের শুভ রং কি?

ইফাজ নামের শুভ রং কি? এই ব্রহ্মান্ডে অনেক রং (colour) রয়েছে, তার মধ্যে মৌলিক রং তিনটি, যথা – লাল, সবুজ এবং নীল। আর সাধারণ রং গুলি হলো – আসমানি, বাদামি, নীল, কালো, গাঢ় লাল, খয়েরি, পেষ্ট কালার(নীল সবুজ), ধূসর, সোনালি, সবুজ বর্ণ, সবুজ, বেগুনি নীল, ম্যাজেন্টা রং(নীললোহিত), লালচে খয়েরী, গাঢ় নীল, কমলা, জলপাই রং, গোলাপি, বেগুনি, লাল, জাফরান, আকাশি নীল, বেগুনি, সাদা, হলুদ রং, ইত্যাদি। ইফাজ নামের শুভ রং হলো সাদা রং।

ইফাজ নামের শুভ দিন কি?

দিন হলো সময়ের একটি একক। সূর্য উঠা থেকে শুরু করে সূর্য অস্ত যাওয়ার পর থেকে পুনরায় সূর্য উঠা পর্যন্ত সময়কে দিন বলা হয়। এই ভাবে সাত দিন হওয়া কে বলা হয় এক সপ্তাহ, এবং এই সপ্তাহের 7 টি নাম রয়েছে, যথা – রবি, সোম, মঙ্গল, বুধ, বৃহস্পতি, শুক্র, শনি। আর এই দিন গুলির মধ্যে ইফাজ নামের শুভ দিন হলো শুক্রবার।

ইফাজ নামের শুভ দিক কি?

আমরা দিক বলতে জানি দিক রয়েছে চারটি, যেমন – উত্তর, দক্ষিণ, পূর্ব, পশ্চিম, এই চারটি দিক সবথেকে বেশি প্রচলিত। কিন্তু বাংলায় দিক রয়েছে মোট দশটি, যথা – পূর্ব- East, পশ্চিম- West, উত্তর- North, দক্ষিণ- South, উত্তর-পূর্ব বা ঈশাণ – North-East, দক্ষিণ-পূর্ব বা অগ্নি – South-East, দক্ষিণ-পশ্চিম বা নৈঋত – South-West, উত্তর-পশ্চিম বা বায়ু – North-West, আকাশ বা উর্দ্ধ – Upward, পাতাল বা অধঃ – Downward.

ইফাজ নামের শুভ দিক হলো অগ্নিকোণ।

ইফাজ নামটি কেন জনপ্রিয়?

ইফাজ নামটি খুব সুন্দর এবং ভালো। বাংলাদেশে অনেক ছেলেদের নাম ইফাজ রাখা হচ্ছে। এবং ইফাজ নামের জনপ্রিয়তা বেড়ে চলেছে।

ইফাজ নামটি কোন কোন ভাষায় ব্যবহার করা হয়?

ইফাজ নামটি আরবি ভাষা থেকে এসেছে। কিন্তু এই নামটি শুধুই আরবি ভাষাতেই ব্যবহার করা হয় না। নামটি আরবি, উর্দু, বাংলা এই ভাষা গুলোতেও ব্যবহার করা হয়।

FAQ

ইফাজ নামটি কোন ভাষার শব্দ?

আরবি।

ইফাজ কি ইসলামিক নাম?

হ্যাঁ।

ইফাজ নামটি কোন ধর্মের?

ইসলাম ধর্মের।

ইফাজ নামটি কোন লিঙ্গের নাম?

ছেলে।

ইফাজ নামটি মুসলমান ছেলেদের নাম হিসেবে ব্যবহার করা যাবে?

হ্যাঁ, অবশ্যই যাবে।

সন্তানের জন্য ইফাজ নামটি কেমন হবে?

খুব ভালো হবে।

শেষ কথা

আজ এই আর্টিকেলটি পড়ে জানতে পারলেন ইফাজ নামের বাংলা, আরবি/ইসলামিক অর্থ কি? এবং ইফাজ নামের বিশেষ কিছু তথ্য। আর্টিকেলটি পড়ে আপনার কেমন লেগেছে তা আমাদের কমেন্টে করে জানান। এবং ইফাজ নামের গুরুত্বপূর্ণ তথ্য গুলি আপনার বন্ধু এবং আপনার পরিবারের কাছে শেয়ার করে জানান।

How useful was this post?

Click on a star to rate it!

Average rating 0 / 5. Vote count: 0

No votes so far! Be the first to rate this post.

We are sorry that this post was not useful for you!

Let us improve this post!

Tell us how we can improve this post?

Leave a Comment